3.6 C
New York
Sunday, December 5, 2021
spot_img

হিন্দু সম্প্রদায়ের এক ব্যক্তিকে প্রাণনাশের হুমকি দিলেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ***

কুমিল্লা দেবিদ্বার রাজামেহার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গাজী আলমগীরের বিরুদ্ধে হিন্দু সম্প্রদায়ের মৃত নিখিল চন্দ্র দাসের ছেলে নিতাই চন্দ্র দাসের জায়গা দখল করে তার টয়লেট ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।
এ ব্যাপারে গত মঙ্গলবার নিতাই চন্দ্র দাস বাদী হয়ে দেবিদ্বার থানায় অভিযোগ করলে বুধবার থানার এএসআই রুহুল আমিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ভুক্তভোগী নিতাই চন্দ্র দাস জানান, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গাজী আলমগীর গুচ্ছগ্রামে সরকারি ছয় শতক খাস জমি দেবে বলে প্রায় বিশ পঁচিশ জন হিন্দু সম্প্রদায় পরিবারের কাছ থেকে ৬০ হাজার টাকা চুক্তি করে ২০ হাজার টাকা করে অগ্রিম আদায় করে নেয়। দীর্ঘদিন যাবৎ গাজী আলমগীর গুচ্ছ গ্রামে সরকারি জায়গা দিতে না পারায় নিতাই চন্দ্র দাস তার ২০ হাজার টাকা ফেরত চাইলে টাকা সরকারের ঘরে জমা হয়ে গেছে বলে জানায় এরপরেও নিতাই চন্দ্র তার টাকা ফেরত চাইলে গাজী আলমগীর তাকে প্রাণনাশের হুমকি এবং এলাকা ছাড়া করবেন বলে হুঁশিয়ারি করেন, আর এই ঘটনার রেশ ধরেই নিতাই চন্দ্রের পিতৃ সম্পত্তিকে নিজের জায়গা বলে দাবি করে নিতাই চন্দ্রের টয়লেট ভেঙে দেয় এবং বাড়ি ঘর ভাঙার হুমকি দেয় গাজী আলমগীর। এই ঘটনায় নিতাই চন্দ্র দাস দেবিদ্বার থানায় গাজী আলমগীরের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করে।

রাজামেহার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রবীণ নেতারা জানিয়েছেন, গাজী আলমগীর কখনোই এলাকায় আসেনাই, সে ঢাকায় থাকে। রাজামেহার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সে জড়িত ছিল না বর্তমান জাহাঙ্গীর চেয়ারম্যান তার নিজের অপকর্মের ভিত্তি মজবুত করতে একজন অরাজনৈতিক ব্যক্তি কে রাজামেহার ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বানিয়েছে এবং জাহাঙ্গীর চেয়ারম্যানের নির্দেশেই হিন্দু সম্প্রদায় লোকদের টাকা আত্মসাৎ তাদেরকে মানসিক নির্যাতন ও সর্বশেষ তার টয়লেট ভাঙচুর করেছে এবং বাড়িঘর ভেঙ্গে ফেলার হুমকি ও প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গাজী আলমগীর। রাজামেহার কলেজের জায়গা দখলসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগও রয়েছে গাজী আলমগীরের বিরুদ্ধে।

এ ব্যাপারে দেবিদ্বার থানা পুলিশ জানায়, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত অব্যাহত রয়েছে।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আরও পড়ুন