6.6 C
New York
Saturday, March 2, 2024
spot_img

স্মার্ট সবজি বিক্রেতা মিজান মিয়া’র হোম ডেলিভারি সার্ভিস চালু, টাটকা সবজি পেতে একটি ফোন কলই যথেষ্ট ***

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে সবজি বিক্রি করে ভাগ্য বদল করেছেন সবজি বিক্রেতা মোঃ মিজান মিয়া। জীবন ও জীবিকার তাগিদে দীর্ঘদিন প্রবাস জীবন শেষে প্রায় ৩যুগ ধরে উপজেলার বাঙ্গরা বাজারে সবজি বিক্রি করে আসছেন তিনি। নিত্যনতুন সুস্বাদু ও টাটকা সবজি বিক্রি করে ইতিমধ্যে মিজান মিয়া এলাকায় স্মার্ট সবজি বিক্রেতা হিসেবে খ্যাতি লাভ করেছেন।

জানা যায়, মোঃ মিজান মিয়া প্রতিদিন তরতাজা ও টাটকা সবজিগুলো কুমিল্লার নিমসার বাজার, কাওরান বাজার, বাইশমোজা বাজার, জুহুর বাজার সহ সারাদেশের বিভিন্ন পাইকারি সবজির হাট বাজার থেকে ঘুরে ঘুরে সংগ্রহ করে নিয়ে আসেন। তার দোকানে সবসময় তরতাজা, টাটকা ও নিত্যনতুন সবজি পাওয়া যায় বলে, স্থানীয় সচেতন ও ভোজন রসিক ক্রেতাদের নজরও থাকে তার দোকানের দিকে। তার দোকানে পাওয়া যায় এর মধ্যে উল্লেখ্যযোগ্য সবজিগুলো হল- আলু, বেগুন, টমেটো, সিম, শসা, করলা, লাউ, সিসিঙ্গা, জলপাই, ফুলকপি, বাধাঁ কপি, লেবু, মিস্টি কুমড়া, কাচাঁ কলা, প্যাচঁতা, ধনে পাতা, মরিচ, মুলা সহ সিজোনাল সকল সবজি।

সবজি ক্রয় করতে আসা কয়েকজন ক্রেতা জানান, মিজান মিয়ার দোকান থেকে তারা সবসময় তরতাজা ও ফরমালিনমুক্ত সবজি সাশ্রয়ী দামে কিনতে পারেন। তাই তাদের পছন্দের তালিকায় রয়েছে মিজান মিয়ার সবজির দোকান।

এবিষয়ে স্মার্ট সবজি বিক্রেতা মোঃ মিজান মিয়া জানান, তিনি দেশের বিভিন্ন পাইকারী সবজির বাজার থেকে তরতাজা ও ফরমালিনমুক্ত সবজিগুলো সংগ্রহ করে পাইকারী ও খুচরায় বিক্রি করেন। প্রতিদিন তিনি পাইকারী ও খুচরা মিলিয়ে প্রায় ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকার সবজি বিক্রি করতে পারেন। এতে তার প্রতি মাসে প্রায় ৩০ থেকে ৪০ হাজার টাকা আয় হয়। তিনি আরো জানান, যুগের সাথে তাল মিলিয়ে বর্তমানে তিনি হোম সার্ভিস চালু করেছেন। এতে করে যে কেউ তার ০১৮৩-৬০৫৬০৫৫ নাম্বারে যোগাযোগ করে সবজির অর্ডার করলে তিনি অর্ডারকৃত সবজিগুলো ক্রেতাদের বাড়িতে পৌঁছে দিবেন বলে জানান।

Thanks for watching

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আরও পড়ুন