20.4 C
New York
Friday, May 27, 2022
spot_img

আর কতো জরিমানা হলে নবীনগরে বন্ধ হবে সরকারি জায়গা দখলের মনোবাসনা, আবারো এসিল্যান্ডের উচ্ছেদ অভিযান ***

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার জিনদপুর ইউনিয়নের বটতলী বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায় সরকারি খালের জায়গা দখল করে স্থায়ী স্থাপনা নির্মাণের অভিযোগে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেছেন উপজেলার সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোশারফ হোসাইন। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে নবীনগর থানার এস আই রনি সুরে রানা সঙ্গীয় ফোর্স এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনায় সার্বিক সহযোগিতা করেন। উপজেলার মেরকুটা গ্রামের বাসিন্দা নূরে আলম নামে এক প্রভাবশালী সরকারের নিয়ম নীতিকে তোয়াক্কা না করে প্রভাব খাটিয়ে একসাথে ৫-৬ টি দোকান স্থায়ী ভাবে নির্মাণের কাজ শুরু করলে এতে স্থানীয় জনমনে ােভ বিরাজ করে। এছাড়াও নবীনগর টু কোম্পানিগঞ্জ সড়কের মতো জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কের পাশে স্থাপনা নির্মাণের সরঞ্জামাদি ইট, বালু, সুরকি, রড রাখায় রাস্তায় যানবাহন চলাচলে বিঘœ ঘটছে। বিষয়টি উপজেলার সহকারী কমিশনার ভূমি মোশারফ হোসাইনের নজরে আসলে তিনি এই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় ঘটনাস্থলে কাউকে না পাওয়ায় স্থাপনা নির্মাণের সকল মালামাল জব্দ করে রাষ্ট্রের অনুক‚লে বাজেয়াপ্ত করা হয় এবং কিছু মালামাল স্থানীয় এক সাবেক ইউপি সদস্যের জিম্মায় রাখা হয়। এবিষয়ে উপজেলার সহকারী কমিশনার ভূমি মোঃ মোশারফ হোসাইন জানান, খবর পেয়ে আমি ঘটনাস্থলে ছুটে এসে তাদের কার্যক্রম বন্ধ করে দেই এবং স্থাপনা নির্মাণের সকল মালামাল জব্দ করে রাস্ট্রের অনুকলে বাজেয়াপ্ত করে দেই। তিনি আরো জানান, সরকারি জায়গা দখলকারীদের বিরুদ্ধে এধরনের উচ্ছেদ অভিযান নিয়মিত অব্যাহত থাকবে। অচিরেই নবীনগর টু কোম্পানীগঞ্জ সড়কের পাশে থাকা সকল অবৈধ স্থাপনা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ উচ্ছেদে মাঠে নামবেন এমনটাই প্রত্যাশা উপজেলাবাসীর।

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আরও পড়ুন