4.3 C
New York
Sunday, December 5, 2021
spot_img

করোনার টিকা নিতে হাসপাতালে ছুটছেন সর্বসাধারন ***

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে টিকা নিতে স্বতঃস্ফূর্তভাবে হাসপাতালে ছুটছেন সর্বসাধারন।

স্থানীয় সংসদ সদস্য ও তথ্য মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সদস্য মোহাম্মদ এবাদুল করিম বুলবুল এ বিষয়ে সার্বক্ষণিক খোঁজ খবর রেখে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে টিকা গ্রহণে সরকারের পাশাপাশি নিজেও উপজেলাবাসীকে উদ্বুদ্ধ করে চলেছেন এবং সকলকে সরকারের স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলারও আহবান জানিয়েছেন।

গত মাসের ১৩ তারিখ হতে আজ পর্যন্ত দ্বিতীয় ধাপে চীন থেকে আগত ‘সিনোভ্যাক’ নামের টিকার ১ম ডোজ গ্রহণ করেছেন মোট ৪ হাজার ৭শ ৯জন। এর মধ্যে গতকাল ও আজকে নবীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হতে টিকা গ্রহণ করেছেন ১ হাজার ৬শ ৮৬জন। আগামী ১৩ তারিখ হতে এই টিকার ২য় ডোজ দেয়া শুরু হবে জানান কর্তৃপক্ষ। তবে প্রথম ধাপে প্রতিবেশী দেশ ভারত থেকে আগত ‘কোভিশিল্ড’ নামের টিকার ১ম ডোজ গ্রহণ করা ১৬ হাজার ৬শ ৬৯জন দ্বিতীয় ডোজ টিকার জন্য অপেক্ষায় রয়েছেন।

আজ রবিবার সকালে হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, করোনাভাইরাসের টিকা নিতে আসা সকলেই দীর্ঘক্ষণ সারিবদ্ধভাবে লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছে। টিকা নিতে পেরে অনেকেই আবার স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন। তাহসিন ভ‚ইয়া রুম্মানের নেতৃত্বে নবীনগর সরকারি কলেজ শাখা বিএনসিসি’র সদস্যরা টিকা নিতে আসা সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মুখে মাস্ক পড়ে সুশৃংখলভাবে সারিবদ্ধ থেকে টিকা গ্রহনের জন্য উদ্বুদ্ধ করতে দেখা গেছে।

সাধারন মানুষের উৎসাহ দেখে গতকাল থেকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ হাসপাতালের বাইরে থাকা শেডের ভিতরে টিকাদান কর্মসূচী শুরু করে। শুধুমাত্র অনলাইনে রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন হওয়া ও মোবাইলে এস.এম.এস আসা ব্যাক্তিরাই আসছেন টিকা গ্রহণের জন্য। টিকা গ্রহণের পূর্বে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাৎক্ষনিক সেখানেই যাবতীয় কার্যাদি সম্পন্ন করে প্রত্যেককেই টিকা প্রদান করছেন। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান জানান, সরকারের পাশাপাশি আমাদের স্থানীয় সংসদ সদস্য ও আমাদের প্রচার প্রচারণার কারণেই বর্তমানে নবীনগর উপজেলাবাসীর মধ্যে করোনা ভাইরাসের টিকা নিতে বেশ আগ্রহ লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

ভিডিওসহ পুরো নিউজটি দেখুন নিচে

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

আরও পড়ুন